Breaking News

আচরণ নিয়ে মন্তব্য করা ইব্রাকে আগুয়েরো- ‘আগে নিজের দেশ নিয়ে ভাবো আর্জেন্টিনা পরে’

‘বাজে আচরণ’ করা আর্জেন্টিনা আর কখনও বিশ্বকাপ জিততে পারবে না বলে মন্তব্য করেছিলেন এসি মিলানের বর্ষীয়ান স্ট্রাইকার জ্লাটান ইব্রাহিমোভিচ। এবার সেই মন্তব্যের ব্যাপারে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন সাবেক আর্জেন্টাইন তারকা সার্জিও আগুয়েরো।

কথার লড়াই শুরু করে ইব্রার উদ্দেশে বলেছেন, আর্জেন্টিনা পরে। আগে তুমি নিজের দেশ নিয়ে ভাবো। তারা তো সবশেষ বিশ্বকাপেই খেলতে পারেনি। গোল ডটকমের খবর।

জ্লাটান ইব্রাহিমোভিচ বলেছিলেন, আমি বলেছিলাম আর্জেন্টিনা অবশ্যই বিশ্বকাপ জয় করবে। কাতার বিশ্বকাপকে ইতিহাসে অমরত্ব কে দিয়েছে, এমনটা জিজ্ঞেস করলে বলবো, লিওনেল মেসি। তবে আমি ভাবছি মেসির সতীর্থদের নিয়ে।

কারণ, তারা আর কখনও বিশ্বকাপ জিততে পারবে না। মেসি সবকিছুই জিতেছে। তাকে বিশ্বসেরা হিসেবেই মনে রাখা হবে। কিন্তু বাকিরা ভালো ব্যবহার করেনি। তাদের শ্রদ্ধা করতে পারছি না।

আর আমি পেশাদার ফুটবলের সর্বোচ্চ জায়গা থেকেই বলছি। আমার কাছে এটাকে একটা ইঙ্গিত মনে হয়েছে যে, তারা কেবল একবারই জিততে পেরেছে। এর পুনরাবৃত্তিও হবে না।

তবে এসব কথাকে সহজভাবে নেননি ম্যানচেস্টার সিটির কিংবদন্তি সাবেক আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সার্জিও আগুয়েরো। টুইচ’র সাথে আলাপচারিতায় তিনি ইব্রাহিমোভিচকে মনে করিয়ে দিয়েছেন যে,

খেলোয়াড় হিসেবে ইব্রাহিমোভিচের ভূমিকা কোনোভাবেই ভালো ছিল না। সুইডিশ তারকার উদ্দেশে ২০২১ সালে পেশাদার ফুটবলকে বিদায় জানানো আগুয়েরো বলেন, তুমি কেমন বাজে ব্যবহার করেছিলে, সেটা মনে করা যাক।

আমার মনে আছে, ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে ম্যাচ ছিল। আমি ছিলাম বেঞ্চে বসা। তুমি আমাকে উত্যক্ত করছিলে। আমার মনে হয়, আর্জেন্টিনাকে নিয়ে ভাবার আগে তুমি নিজ দেশ, খেলোয়াড়দের নিয়ে ভাবো;

যারা বিশ্বকাপেই খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি। ইব্রার উদ্দেশে আগুয়েরো আরও বলেন, সিটি ও ইউনাইটেডের এক ম্যাচে আমি মনে করতে পারি, তুমি নিকোলাস ওটামেন্ডির সঙ্গে লড়াই শুরু করেছিলে।

এমনকি পেপ গার্দিওলার সাথে তর্কও জুড়ে দিয়েছিলে এর আগে। সম্ভবত এ কারণেই, পেপ তোমাকে বার্সা থেকে বিক্রি করে দিতে চেয়েছিল। তুমি আমার সতীর্থদের অসম্মান করেছো।

সেই সাথে, আমার সাথে এমন ব্যবহার করেছো। মনে হয়েছে, আমাকে গুলি করছো। আর এবার আমি তোমাকে গুলি করছি। জ্লাটান, আমরা বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। আমি দুঃখিত, তুমি হয়তো নিজেই নিজেকে মারতে চাইছো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *